আলোড়ন নিউজ
Lead News রাজনীতি সারাদেশ

বাদলের মৃত্যু রাজনৈতিক অঙ্গনে বড় শূন্যতা সৃষ্টি করেছে: প্রধানমন্ত্রী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাসদের কার্যকরী সদস্য মঈন উদ্দীন খান বাদলের মৃত্যুতে রাজনৈতিক অঙ্গনে এক বিরাট শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।তিনি বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধ থেকে সকল রাজনৈতিক সংগ্রামে তার সক্রিয় ভূমিকা ছিলো।

বৃহস্পতিবার বিকেলে একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশনে সংসদ সদস্য মঈন উদ্দীন খান বাদলের মৃত্যুতে আনীত শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে সংসদ নেতা একথা বলেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনায় তিনি আরো বলেন, ছাত্রলীগের একজন কর্মী হিসেবে ছাত্র রাজনীতিতে তিনি সক্রিয় অংশগ্রহণ করেছেন। মহান মুক্তিযুদ্ধেও তাঁর বলিষ্ট অবদান রয়েছে। তিনি সব সময় অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী ছিলেন এবং শান্তি-সমৃদ্ধিতে বিশ্বাসী ছিলেন। সংসদে তিনি যখন ভাষণ দিতেন প্রত্যেকটা ভাষণই মনে একটা দাগ কেটে যেত। অত্যন্ত বলিষ্ঠভাবেই তিনি কথা বলতেন। এলাকার উন্নয়নের জন্য সব সময় তিনি সক্রিয় ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে তাঁর এলাকাবাসীর যেমন ক্ষতি হয়েছে, তেমনি রাজনীতিরও ক্ষতি হয়েছে।

তিনি বলেন, ছাত্র রাজনীতিতে তিনি সক্রিয় অংশ গ্রহণ করেছেন।মুক্তিযুদ্ধে তার অবদান রয়েছে।তিনি সব সময় অস্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী ছিলেন এবং শান্তি সমৃদ্ধিতে বিশ্বাসী ছিলেন।পার্লামেন্টে তিনি যখন ভাষণ দিতেন প্রত্যেকটি ভাষণেই একটা দাগ কেটে যেত। অত্যন্ত বলিষ্ট ভাবেই তিনি কথা বলতেন। এলাকার উন্নয়নের জন্য সব সময় তিনি সক্রিয় ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মঈন উদ্দীন খান বাদলের তার মৃত্যুতে তার এলাকাবাসীর ক্ষতি হয়েছে।সাথে রাজনৈতিক অঙ্গনে আমরা যারা স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন করেছি আমরা যারা গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছি এমনকি আয়ুব বিরোধী আন্দোলন থেকে নিয়ে ৬ দফা আন্দোলন, আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা প্রত্যহার আন্দোলন মুক্তিযুদ্ধ প্রতিটি ক্ষেতেই তার সক্রিয় ভূমিকা ছিল। ছাত্রজীবন থেকেই তিনি ছাত্রলীগের কর্মী ছিলেন। স্বাধীনতার পর তিনি জাসদে যোগ দেন এবং আমরা যখন ঐক্যজোট গঠন করি।আমাদের ঐক্যজোটের সঙ্গে সক্রিয় ছিলেন।কাজেই আন্দোলন সংগ্রামের রাজপথে এবং এই সংসদে তার সঙ্গে এক সাথে কাজ করার সুযোগ হয়েছে।রাজনৈতিক চিন্তা চেতনা প্রজ্ঞায় তিনি যথেষ্ট শক্তিশালী ভূমিকা রেখেছেন। তার মৃত্যুতে রাজনৈতিক অজ্ঞনে একটা বিরাট শূন্যতা সৃষ্টি হলো।

বাদলের স্মৃতিচারণ করে সংসদ নেতা বলেন, দুই দিন আগেই.. আমি সব সময় তার শরীর স্বাস্থ্যের খোঁজ নিতাম। তিনি অসুস্থ ছিলেন। তার স্ত্রী সব সময় মেসেজ পাঠাতেন খবর দিতেন, তিনি কি অবস্থায় আছেন। দুই দিন আগেও তার কাছ থেকে মেসেজ পাই। কিন্তু আজ সকালে যখন খবর পেলেন একটা বিরাট ধাক্কা লেগে গিয়েছিল। কারণ এটা আমি ভাবতেই পারিনি যে তিনি এভাবে মৃত্যুবরণ করবেন। পার্লামেন্ট শুরু হবে তিনি আসবনে পার্লামেন্টে এবং দ্রুত সুস্থ হতে হবে এটাই তার মনে ছিল। আজকেও মৃত্যু খবর পেয়ে তার স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলি এবং তিনি একথাই বলছিলেন বুবু তিনি তো চাচ্ছিলেন খুব তাড়াতড়ি সুস্থ হয়ে পার্লামেন্টে এসে কথা বলবেন। আমাদের দুর্ভাগ্য যে তার সেই বলিষ্ট কণ্ঠস্বর আর শুনতে পাব না।

Related posts

ইমতিয়াজ বুলবুল ও আইয়ুব বাচ্চু স্মরণে গাইবে ৩০ হাজার ছাত্র, শিক্ষক

Ashish Mallick

রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা

Ashish Mallick

এবার ছাত্রলীগ, যুবলীগের পাশাপাশি ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের বিরুদ্ধে অভিযান

Ashish Mallick

Leave a Comment

* By using this form you agree with the storage and handling of your data by this website.