আলোড়ন নিউজ
Lead News সারাদেশ স্বাস্থ্য

১২ দিন পর ফের করোনা টেস্ট করা হলে তাতেও ফল পজেটিভ আসে ম্যাজিস্ট্রেট শাহরিয়ারের

নিজস্ব প্রতিবেদক: আক্রান্ত হওয়ার ১৩ দিনের মাথায় কোভিড ১৯ টেস্ট আবারো পজিটিভ আসে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের । বিষয়টি শাহরিয়ার নিজেই নিশ্চিত করেছেন।

মানুষটাকে হয়তো অনেকেই চিনেন। নাম মনজুর মোহাম্মদ শাহারিয়ার, উপ-পরিচালক, জাতীয় ভোক্তা অধিদপ্তর।যদি ভুলে না গিয়ে থাকেন তাহলে জানার কথা যে, গতবছরের রমজান মাসে  আড়ংয়ে জরিমানা করে সারা দেশে আলোচনায় এসেছিলেন এই মানুষটি। তারপরই নাটকীয় ভাবে তাকে ঢাকার বাইরে বদলির ঘোষনা আসলে ফেসবুকে শুরু হয় প্রতিবাদের ঝড়। আর সেই চাপেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তার বদলির আদেশ প্রত্যাহার করে ঢাকায় রাখতে বাধ্য হয়।

এরপর থেকে ঢাকার আনাচে কানাচে ঘুরে বেরিয়েছেন দেশের পণ্য ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের রশি টেনে ধরতে। ভয়াভহ করোনাতেও তিনি নিজের দায়িত্বে ছিলেন অটল। জীবনের ঝুকি নিয়ে বাজারে বাজারে ঘুরে বেড়িয়েছেন। চেষ্টা করেছেন করোণা পরিস্থিতি ও রমজানকে কেন্দ্র করে কেউ যেন সিন্ডিকেট বাণিজ্য করতে না পারে। আদা সহ আরও যেসকল পণ্যের দাম এখন অনেকটা স্থিতিশীল, তা সম্ভব হয়েছে শুধুমাত্র এই মানুষটার একক প্রচেষ্টায়।

কিন্তু এভাবে বাজারে বাজারে ঘুরাঘুরির ফলে আজ এই মানুষটাও করোনায় আক্রান্ত। যুদ্ধ করছে মৃত্যুর সঙ্গে। ২১ মে তার একটা লাইভে দেখলাম করোনার যন্ত্রণায় গলা দিয়ে ঠিক মত আওয়াজও করতে পারছেন না। শুধু তিনি নিজেই না, তার স্ত্রী, সন্তান সহ পরিবার করোনাযুদ্ধে লড়াই করছেন।

এ নিয়ে শাহরিয়ার বলেন, ফুসফুসে গভীর সংক্রমণ ধরা পড়েছে। আশংকা সত্যি হয়ে গেল। ঘরের অন্য সদস্যদের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।

তিনি বলেন, রাতের অন্ধকারের পর আসে ভোরের সূর্য। আলোকিত হয়ে উঠে সবকিছু। ইনশাআল্লাহ বিশ্বাস করি আবার সব আগের মতই হবে। মনোবল শক্ত আছে; কিন্তু কি যেন…… পরিবারের সব সদস্যকে অমানবিক এক যন্ত্রণায় ফেলে দিলাম।ইনশাআল্লাহ, কর্মচঞ্চল প্রাণে সুস্থ হয়ে আবার ফিরে আসবো জনমানুষের সেবায়। রাব্বুল আলামিন সবাইকে হেফাজত করুন; ধৈর্য ধরার তৌফিক দিন।
সারাদেশে সবাই আমাদের জন্য যে প্রার্থনা করেছেন তা আশীর্বাদ হয়ে থাকবে।সবার দোয়া চাই।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেন, আল্লাহ উনার ভাগ্যে কি রেখেছেন। তবে আল্লাহ না করুক উনাকে যদি আমরা হারিয়ে ফেলি, তাহলে নিশ্চিত থাকেন, সাধারণ জনগণের অনেক বড় একটা ক্ষতি হয়ে যাবে। কারণ, উপরের চাপকে উপেক্ষা করে সাধারণ জনগণের জন্য নিজেকে বিলিয়ে দিতে সবাই পারে না। এটা কেবল একজন শাহরিয়ার এর পক্ষেই সম্ভব।তাই আসুন সবাই মহান আল্লাহর কাছে দোয়া করি, আল্লাহ যেন শাহরিয়ার স্যার ও তার পরিবারকে আমাদের মাঝে আবারও সুস্থ্য ভাবে ফিরিয়ে দেন।

Related posts

১৭ মার্চ ফেনীতে আসছেন নগর বাউল জেমস

Rashed Hossen

 চট্টগ্রাম- ১৫ আসনের সর্বস্তরের জনগণকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ড.আবু রেজা নদভী এমপি

Ashish Mallick

ঠাকুরগাঁওয়ে সাপের কামড়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

Md Ilias

Leave a Comment

* By using this form you agree with the storage and handling of your data by this website.