আলোড়ন নিউজ
Lead News রাজনীতি সারাদেশ স্বাস্থ্য

আমার স্ত্রীর অবস্থা খুবই খারাপ, কোথাও পাচ্ছি না আইসিইউ! বাঁচা মরা তো আল্লাহর হাতে

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিকেল থেকে শুরু করে রাত দুটো পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকায় কোথাও ম্যানেজ করতে পারেনি স্ত্রীর জন্য আইসিইউ। আমার স্ত্রীর অবস্থা খুবই খারাপ। বাঁচা মরা তো আল্লাহর হাতে। আমার করোনা পজিটিভ হওয়ার খবরে স্ত্রীকে দুর্বল করে ফেলল আরও । এখন প্রায় শরীর নিস্তেজ হয়ে আছে। এসব কথাগুলো বলছেন বর্তমান সময়ের আলোচিত করোনা যোদ্ধা কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ। তিনি জীবনবাজি রেখে এ পর্যন্ত করোনায় বা করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ৬১ জনের মরদেহ গোসল করানো হতে শুরু করে জানাজা, দাফন-কাফন করার কাজ সম্পন্ন করেছে।অথচ আজ তারই স্ত্রীর জন্য হাসপাতালে খুঁজে পাচ্ছে না আইসিইউ। সত্যিই বিষয়টা খুব কষ্টের।

তিনি তার স্ত্রী লুনার জন্য সবার উদ্দেশ্য আকুতি কন্ঠে বলেন, একটু দোয়া করেন সবাই প্লিজ। আমি এখন কাঁচপুর সাজেদা হাসপাতালে। আইসিইউ পেতে হয়ত সকাল হয়ে যাবে।

খোরশেদ জানান, শনিবার বিকালে লুনার অবস্থার অবনতি হলে নারায়ণগঞ্জ বা ঢাকায় আইসিউ ব্যবস্থা করতে মাথার ঘাম পায়ে ফেলেছি। কিন্তু কোথাও আইসিইউ খালি নেই বলে সাফ জানিয়ে দেই। নারায়ণগঞ্জে শুধু সাজেদা হাসপাতালে চারটি আইসিইউ বেড রয়েছে। সেগুলোও পরিপূর্ণ। আর কোথাও নেই।

শনিবার বিকালের দিকে করোনা টেস্টে ফল পজিটিভ আসে কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের। এক সপ্তাহ আগে তার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়ে আইসোলেশনে বাড়িতেই ছিলেন।

তবে খোরশেদ তার চলমান কার্যক্রম নিয়ে স্পষ্ঠ বলেন, আমি আক্রান্ত হলেও আমার সকল কার্যক্রম চলবে। আমার টিম সক্রিয় থাকবে। আমার ফোন চালু থাকবে। আমি যতদিন বেঁচে আছি এক বিন্দুও নড়ব না।

Related posts

আজ সকালে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেবে বিএনপি

Ashish Mallick

আমি পাট নিয়ে আশাবাদী প্রধানমন্ত্রী

Ashish Mallick

দিল্লিতে নরেন্দ্র মোদিকে খুনের ছক!

Ashish Mallick

Leave a Comment

* By using this form you agree with the storage and handling of your data by this website.