আলোড়ন নিউজ
Lead News অপরাধ আইন-আদালত সারাদেশ

শ্বশুরের যৌন নির্যাতনের স্বীকার পুত্রবধু, সালিশে জুতার মালা পড়িয়ে গ্রাম ঘোরানোর চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিরাজগঞ্জে পুত্রবধূকে একাধিকবার যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এনে শ্বশুরকে জুতার মালা পড়িয়ে পুরো গ্রাম ঘোরানো হয়েছে গ্রাম্য সালিশির সিদ্ধান্তে।

শনিবার সদর উপজেলার মেছড়া ইউনিয়নের বালিয়ামেন্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদের উপস্থিতিতে সালিশি বৈঠকে এমন রায় হওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে পক্ষে বিপক্ষে আলোচনা -সমালোচনা চলছে।

সালিশি সূত্রে জানা যায়, বছর খানেক আগে অভিযুক্ত আমির হোসেনের ছেলে শাকিলের (১৯) সাথে পাশ্ববর্তী  তেঘুরী গ্রামের শাহ আলীর মেয়ে কবিতা খাতুনের (১৭) সাথে বিয়ে হয়। পুত্রবধূ বেশ সুন্দরী হওয়ায় তার ওপর যৌন লালসার দৃষ্টি পড়ে শ্বশুর আমির হোসেনের। স্বামী শাকিল বাড়িতে না থাকার সুবাদে বিভিন্ন সময় নাকি তাকে কু-প্রস্তাব দিযে আসছে। কিন্তু এতে পুত্রবধু রাজি না হওয়ায় শ্বশুড় বিভিন্ন সময় তাকে মানসিক ও শারীরিকভাবে নির্যাতন করত। এবার ঈদ-উল-ফিতরে স্বামী শাকিল বাড়িতে আসলে শ্বশুড়ের কু-কর্মের কথা ফাঁস করে কবিতা খাতুন। স্বামী শাকিলকে ঘটনার সত্যতা বিশ্বাস করাতে কবিতা খাতুন মোবাইল ফোনে শ্বশুড়ের সাথে প্রেমের অভিনয় করেন। এদিকে ঘটনার সত্যতা বুঝতে পেরে শাকিল তার বাবার বিরুদ্ধে এলাকার মুরুব্বী আবু সামা, জয়নাল ও বাদশাকে বিষয়টি জানান। পরবর্তীতে মাতব্বরদের সমন্বয়ে সালিশি বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সালিশে মেছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ স্থানীয় মৌলভীদের ফতুয়ায় বিচারের রায় হিসেবে আমির হোসেনকে পুরো গ্রামে জুতার মালা পড়িয়ে ঘুরানোর রায় ঘোষণা ও রায় কার্যকর করেন।

এ ব্যাপারে গৃহবধূ কবিতা খাতুন জানান, গত শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে শ্বশুড় আমার ঘরে ঢুকে এক পর্যায়ে ধর্ষণের চেষ্টা করতে থাকে। এতে আমি জোর গলায় চিৎকার করাতে প্রতিবেশী এগিয়ে আসে।যার কারণে বেঁচে যাই। অন্যদিকে শ্বশুড় আমির হোসেন প্রতিবেশীর উপস্থিতির টের পেয়ে পালিয়ে যায়। পরে বিষয়টি স্বামীকে জানানো হলে সে বিচার সালিশের আয়োজন করে।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ গণমাধ্যমের সাথে কোন প্রকার কথা বলেনি।

সিরাজগঞ্জ সদর থানা অফিসার ইনচার্জ দায়িত্বে থাকা হাফিজুর রহমান জানান, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত মৌখিক বা লিখিত কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। তবে অভিযোগ পেলে আইনুনাগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান যদি বিচারের নামে জুতার মালা পড়িয়ে গ্রাম ঘুরায় তবে ইউনিয়ন পরিষদ আইন অনুযায়ী তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে যোগ করেন ওই উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার অসীম কুমার।

Related posts

করোনায় বিশ্বে প্রাণহানি ২ লাখ ৭০ হাজার ছাড়ালো

kakon

৪১তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি আজ

Ashish Mallick

কালিগঞ্জে ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে জেলা প্রশাসকের গনসংযোগ

Ashish Mallick

Leave a Comment

* By using this form you agree with the storage and handling of your data by this website.