আলোড়ন নিউজ
Lead News রাজনীতি সারাদেশ

আত্মসমর্পণ করতে হবে, না হয় পুলিশ তাকে ধরে ফেলবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদ অন্যায় করেছে। তার জন্য ইতিমধ্যে র‌্যাব ব্যবস্থা নিয়েছে। তাকে খোঁজা হচ্ছে তিনি যেখানেই থাকুক তাকে আত্মসমর্পণ করতে হবে, না হয় পুলিশ তাকে ধরে ফেলবে।

আজ রবিবার (১২ জুলাই) ঈদুল আজহা উপলক্ষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে দেশের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, প্রথম কথা সাহেদ কোথায় সেটা সাহেদ জানে।
তারও উচিত আত্মসমর্পণ করা। সাহেদকে র‌্যাব-পুলিশ খুঁজছে। আশা করি, খুব শিগগিরই তার গ্রেফতারের বিষয়টি আপনাদের জানাতে পারবো। সে কী ধরনের অন্যায় করেছে, সেগুলো ইনকোয়ারি করছে। রিপোর্ট এলে আপনাদের জানাতে পারবো। তার অন্যায়ের গভীরতাটা কতটুকু।’

উত্তরা থানা সবসময় সাহেদকে শেল্টার দিয়েছে এগুলো আপনারা আমলে নিচ্ছেন কিনা–এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এ বিষয়টি উদঘাটনের পর কেউ তাকে শেল্টার দেয়নি। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী তার অপরাধ বের করেছে। সে কী করেছে সেগুলো র‌্যাব ও পুলিশ তদন্ত করছে। তাকে অবশ্যই আমরা আইনের আওতায় নিয়ে আসবো।’

সাহেদ কি দেশের বাইরে চলে গেছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দেশের বাইরে যাওয়ার তো কোনো উপায় নাই।
তার পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে, বর্ডার যাতে ক্রস করতে না পারে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আমরা খুঁজছি আশা করি, শিগগির তাকে ধরতে সক্ষম হবো।

একই সময়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, ‘সাহেদ গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত
পুলিশের তৎপরতা চলবে।’

সভায় কোরবানির পশুর হাটের নিরাপত্তা ও চামড়া পাচার রোধ এবং শিল্পাঞ্চলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণসহ প্রাসঙ্গিক বিষয়ে করণীয় নির্ধারণ নিয়েও আলোচনা হয়। সভায় আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদসহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Related posts

দেশে নতুন করে করোনায় ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত হয়েছে ২০৯ জন

Ashish Mallick

বিএনপি সকল প্রার্থীদের ঢাকায় ডেকেছেন মির্জা ফখরুল

Ashish Mallick

ফনী এখন বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চলে অবস্থান করছে

Nurul Alam

5 comments

ปั้มไลค์ July 12, 2020 at 4:42 pm

Like!! I blog quite often and I genuinely thank you for your information. The article has truly peaked my interest.

Reply
ทิชชู่เปียกแอลกอฮอล์ July 12, 2020 at 4:43 pm

Thank you ever so for you article post.

Reply
แผ่นกรองหน้ากากอนามัย July 12, 2020 at 4:45 pm

I really like and appreciate your blog post.

Reply
Salah Uddin July 12, 2020 at 10:49 pm

নব্য মোশতাকদের চিনতে ও আগেভাগে খাচায় ভরতে হবে।

যখন একজন প্রতারক ধরা পড়ে সবাই তার পেছনে উঠেপডে লাগে। কিন্তু গোড়ায় যে গলদ (root cause) তা সারাতে কাউকে মনেযোগী হতে দেখা যায় না। ফলে টাউট বানানোর ফ্যাক্টরী চালু থাকে। একের পর এক টাউট বাজারে আসতে থাকে। এটা বন্ধ করতে চাইলে এসব টাউটদের উৎপাদন, লালন ও পালনকারীদের ধরতে ও যথাযথ সাইজ করতে হবে।

আওয়ামী লীগের চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাচিপ সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম. ইকবাল আর্সলানের পিতা ডা. আসজাদ জাতীয় সংসদ জামায়াতের এমপি (১৯৯১-৯৬) ছিলেন। এই ডা: ইকবাল কেমন করে স্বাচিপের প্রেসিডন্ট হতে পারে? সেসময় দেশপ্রেমীদের আপত্তি শোনা হয়নি যার ফলাফল জাতি এখন ভোগ করছে। গুরুত্বপূর্ণ এ পদে থাকার সুবাদে সে পুরো স্বাস্হ্য মন্ত্রনালয় ও স্বাস্হ্য অধিদপ্তরকে রাজাকারীকরন করার সুযোগ নেয়। তার পরামর্শেই জননেত্রী শেখ হাসিনা বর্তমান স্বাস্থ্য মন্ত্রী ও স্বাস্হ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকে নিয়োগ দেন। এ ডা: ইকবাল হচ্ছে নব্য খন্দকার মোশতাক। মহা পরিতাপের বিষয় এরা তিনজনই রাজাকারের বাচ্চা।

পরিকল্পিত ভাবে এ রাজাকার শাবকেরা আওয়ামী লীগে ঢুকছে! এসব চোরে চোরে মামাতু ভাইরা সব মিলে জনগনের টাকা লুটপাট করছে, জনগনের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে এবং এতে বদনাম হচ্ছে শুধু সরকারের। এদের এজেন্ডা এখানেই থেমে নেই- এসব কুকৃতির মাধ্যমে সরকারের প্রতি জনমনে অনাস্থা সৃস্টি করে এরা সরকার পতনের রাস্তা পরিস্কার করছে যেন অন্ধকারের শক্তির কব্জায় দেশ চলে যায় এবং তারা যুদ্ধপরাধীদের ফাঁসির প্রতিশোধ নিতে পারে।

তাই কালক্ষেপণ না করে এদের সবকটিকেই লাথি মেরে স্বাস্থ্যের মতো গুরুত্বপূর্ণ সেক্টর থেকে এক্ষুনি বের করে দিতে হবে।

Reply
SMS July 12, 2020 at 4:47 pm

Your site is very helpful. Many thanks for sharing!

Reply

Leave a Comment

* By using this form you agree with the storage and handling of your data by this website.