আলোড়ন নিউজ
বিনোদন

নিষিদ্ধ হল ফারুকীর নতুন ছবি ‘শনিবার বিকেল’

চলতি বছরের বহুল প্রতীক্ষিত ছবির তালিকায় শীর্ষে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘শনিবার বিকেল’। কিন্তু সেন্সরের চৌকাঠ পেরোনের আগেই বাংলাদেশে ‘ব্যান’ হল ছবিটি।

‘শনিবার বিকেল’ এর ব্যান হওয়ার খবরটি নিশ্চিত করেছেন সেন্সর বোর্ডের সদস্য ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) দ্বিতীয় বারের মতো ‘শনিবার বিকেল’ ছবিটি প্রদর্শনের আয়োজন করে সেন্সর বোর্ড। এর আগেও গত সপ্তাহে সেন্সর বোর্ডে ছবিটির প্রদর্শনীর আয়োজর করা হয়। কিন্তু গতকাল ছবিটি দেখার সময় সচিবসহ সেন্সর বোর্ডের প্রায় সবাই উপস্থিত ছিলেন।

ছবি প্রদর্শনী শেষে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, ‘শনিবার বিকেল’ মুক্তি পেলে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে। সেজন্য সেন্সর ছাড়পত্র স্থগিত করা সহ ছবিটি ‘ব্যান’ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। -বলছিলেন নওশাদ।

এ বিষয়ে পরিচালক কিংবা প্রযোজককে আনুষ্ঠানিক ভাবে জানানো হয়েছে কিনা জানতে চাইলে নওশাদ বলেন, তাদেরকে চিঠির মাধ্যমে জানানোর কথা। সম্ভবত এরইমধ্যে চিঠি তাদের কাছে পৌঁছে গেছে।

নওশাদের সাথে কথা বলে ‘শনিবার বিকেল’ ব্যান হওয়া বিষয়টি নিয়ে যোগাযোগ করা হয় ছবির নির্মাতা ফারুকীর সাথে।

তিনি বলেন, সেন্সর বোর্ডে ‘শনিবার বিকেল’ স্ক্রিনিং হয় ৬/৭ দিন আগে। ছবিটি প্রদর্শনীর পর অফিশিয়ালি ফোন করে সেখান থেকে আমাকে জানানো হয় যে ছবিটি তাদের পছন্দ হয়েছে। তবে ছবি শেষে একটা সুপার(টেক্সট) দিতে হবে। এটাও আমাকে আনুষ্ঠানিক ভাবে চিঠিতে জানানোর কথা, সে অপেক্ষায় আছি।

কিন্তু ছবিটিতো দ্বিতীয় স্ক্রিনিংয়ের পর সেন্সরবোর্ড থেকে ‘ব্যান’ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, এটি মুক্তি পেলে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে। এ বিষয়ে আপনার কোনো বক্তব্য আছে কিনা?

এমন প্রশ্নে ফারুকী বলেন, আমারতো মনে হয় ছবিটি দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার কোনো সুযোগ নেই, বরং ভাবমূর্তি বাড়ার কথা। যাইহোক, আপাতত এই বিষয়ে কিছু না বলি। আনুষ্ঠানিক ভাবে চিঠি এখনো পাইনি।

বাংলাদেশ-ভারত-জার্মান এই ত্রিদেশীয় যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘শনিবার বিকেল’ বাংলা ভাষা ছাড়াও ইংরেজি ভাষাতেও হয়েছে ডাবিং। টানা ১৫ দিন মহড়ায় মাত্র ৭ দিনেই শেষ করেছেন ছবির শুটিং।

‘শনিবারের বিকেল’ ছবিতে অভিনয় করেছেন জাহিদ হাসান, পরমব্রত, তিশা এবং ফিলিস্তিনি অভিনেতা ইয়াদ হুরানি।

২০১৬ সালে গুলশানে ঘটে যাওয়া হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলা নিয়েই এ ছবির প্লট। তাই গত বছর যখন ছবির শুটিং শুরু হয়েছিল তখন থেকে ‘শনিবার বিকেল’ নিয়ে মাতামাতি হয়েছিল।

Related posts

শুটিং করতে গিয়ে গুরুতর আহত হলেন প্রিয়াঙ্কা সরকার

Nurul Alam

ভূমির ওপর অক্ষয়ের আস্থা !

Ashish Mallick

বলিউড অভিনেতা মহেশ আনন্দ আর নেই

Ashish Mallick

Leave a Comment

* By using this form you agree with the storage and handling of your data by this website.